মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

ন্যাচারেল গ্যাস ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরী স্কুল

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

সংক্ষিপ্ত বর্ণনাঃ-

 (ক) স্কুল ভবন :একটি U  আকারের টিন শেড ভবন যাতে ২০ টি কক্ষ রয়েছে। ঐ ভবন সংলগ্ন একটি I(আই) আকারের ভবন আছে যাতে ০৪ টি কক্ষ আছে। দুইটিদোতলাপাকা ভবন আছে যাতে কক্ষ আছে ১২টি। ফ্যাসিলিটিজ বিভাগ কর্তৃক নির্মিত দুইটিএকতলা  ভবন আছে যাদের প্রত্যকটিতে ৩টি করে ০৬টি কক্ষ রয়েছে। স্কুলে প্রতিষ্ঠান প্রধানের অফিস কক্ষ,শিক্ষক মিলনায়তন, শিক্ষিকা মিলনায়তন, অফিস কক্ষ, লাইব্রেরী, বি.এন.সি.সি কক্ষ, স্কাউট কক্ষ, প্রার্থনা কক্ষ, দুটি ষ্টোর রুম, সাংস্কৃতিক কক্ষ ও ক্রীড়া কক্ষ রয়েছে। পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন বিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান, কম্পিউটার শিক্ষা, গাহর্স্থ্য অর্থনীতি বিষয়ের গবেষনাগার হিসাবে ০৫টি কক্ষ ব্যবহৃত  হচ্ছে। বাকী ২৫ টি কক্ষ শ্রেণী কক্ষ হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

 

(খ) টয়লেট: ১২টি টয়লেট রয়েছে যাতে নিয়মিত পানি সরবরাহের ব্যবস্থা আছে।

 

(গ) বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা: প্রত্যকটি কক্ষে প্রয়োজনীয় সংখ্যক ফ্যান ও লাইটের ব্যবস্থা আছে। এন.জি.এফ.এফ লিঃ এর নিজস্ব পাওয়ার প্লান্টহতে সার্বক্ষনিক বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা রয়েছে।

 

(ঘ) স্কুল ক্যাম্পাসে শহীদ মিনার রয়েছে যার সংলগ্ন দুইটি ফুলের বাগান রয়েছে।

 

(ঙ) বাউন্ডারী ওয়াল দ্বারা স্কুল ভবন সংরক্ষিত। ছাত্র ও ছাত্রীদের দুইটি পৃথক গেইট রয়েছে।

 

(চ) ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পৃথক খেলার মাঠ আছে।

১৯৬১

ইতিহাস: ১৯৬০ইং সনে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান শিল্প উন্নয়ন সংস্থা কর্তৃক সার শিল্পের পথিকৃৎ ন্যাচারেল গ্যাস ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরী লিমিটেড প্রতিষ্ঠিত হয়। কারখানার কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সন্তানদের শিক্ষা লাভের উদ্দেশ্যে ১৯৬১ইং সনে কারখানা কর্তৃক আবাসিক এলাকার কেন্দ্রস্থলে এন জি এফ এফ স্কুলটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে বিদ্যালয়টি বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাষ্টিজ কর্পোরেশন কর্তৃক পরিচালিত হচ্ছে। প্রতিষ্ঠালগ্ন হতেই প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক দিক থেকে দেশের একটি অন্যতম সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসাবে সুমান অক্ষুন্ন রেখেছে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মো: বনি আমিন ০১৭১৬৫৭২০৮৯। boniamin56@gmil.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

 

ক্রমিক নং

শ্রেণী

ছাত্র-ছাত্রীদের সংখ্যা                 মোট

মন্তব্য

 

 

ছাত্র সংখ্যা

ছাত্রী সংখ্যা

 

 

০১

প্রথম

৪৪

৬০

১০৪

 

০২

দ্বিতীয়

৪১

৫৬

৯৭

 

০৩

তৃতীয়

৮০

৫৮

১৩৮

 

০৪

চতুর্থ

৪৪

৪৮

৯২

 

০৫

পঞ্চম

৫৪

৫৩

১০৭

 

০৬

ষষ্ঠ

৬০

৪৯

১০৯

 

০৭

সপ্তম

৫৬

৪০

৯৬

 

০৮

অষ্টম

৭৯

৫৬

১৩৫

 

০৯

নবম

৫১

৪৫

৯৬

 

১০

দশম

৬০

৫২

১১২

 

 

মোট

৫৬৯

৫১৭

১০৮৬

 

৯৮

বিদ্যালয়টি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড সিলেট কর্তৃক অনুমোদিত একটি বিশেষ পরিচালনা কমিটি দ্বারা পরিচালিত। স্কুল পরিচালনা কমিটির সদস্য সংখ্যা ০৭ জন। বর্তমান পরিচালনা কমিটির সদস্যবৃন্দ:

১। জনাব প্রকৌশলী রসময় চক্রবর্তী

সভাপতি, স্কুল পরিচালনা কমিটি এবংব্যবস্থাপনা পরিচালক, এনজিএফএফ লি:।

২। জনাব জাফর হাসান চৌধুরী - অভিভাবক প্রতিনিধি।

৩। জনাব আব্দুস শুকুর - অভিভাবক প্রতিনিধি।

৪। মিসেস আসমাউল হুসনা - অভিভাবক প্রতিনিধি।

৫। জনাব সৈয়দ মুশাহিদ আলী - শিক্ষক প্রতিনিধি।

৬। জনাব বেলায়েত হোসেন - শিক্ষক প্রতিনিধি।

৭। জনাব মো: বনি আমিন - সদস্য-সচিব এবং প্রধান শিক্ষক।

বিগত পাঁচ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল:

           

সন

পরীক্ষার  নাম

পরীক্ষার্থীর সংখ্যা

পাসের সংখ্যা

পাশের শতকরা হার

জিপিএ ৫.০০

 

২০১২

এস.এস.সি

৯৭

৯৫

৯৮

২৬

 

২০১১

এস.এস.সি

৯৩

৯০

৯৭

২৫

জে.এস.সি

১০৫

১০৩

৯৮.১

০৮

প্রাথমিক সমাপনী

১০৬

১০৬

১০০

৩৮

 

২০১০

এস.এস.সি

৮৩

৭৯

৯৫

২২

জে.এস.সি

১১১

১০৮

৯৭.৩

০১

প্রাথমিক সমাপনী

৮৮

৮৬

৯৮

 

 

২০০৯

এস.এস.সি

১০০

৯৮

৯৮

২৯

প্রাথমিক সমাপনী

১১৩

১১৩

১০০

 

 

২০০৮

এস.এস.সি

৯৯

৬৯

৭০

০৭

জে.এস.সি

 

 

 

 

শিক্ষার বৃত্তি তথ্যসমূহ:

 

সন

মেধা/সাধারন

পিএসসি

জেএসসি

এস এস সি

 

২০১২

মেধা

 

সাধারন

 

 

২০১১

মেধা

-

সাধারন

১৪

০৯

 

২০১০

মেধা

১৩

০২

সাধারন

১০

০৭

২০০৯

মেধা

 

সাধারন

 

 

২০০৮

মেধা

 

সাধারন

 

১৩। অর্জনঃ(ক) শিক্ষা ক্ষেত্রে:-

v        স্কুলটির জন্মলগ্ন থেকেই মেধা তালিকায় স্থানসহ বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষায় প্রায় শত ভাগ পাশের ধারা অব্যাহত আছে।

v        প্রতিবছরই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী এস.এস.সি, জে.এস.সি ও প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় বৃত্তি লাভ করে।

v        এছাড়া এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক- শিক্ষিকা বৃন্দ অত্যন্ত দক্ষ ও অভিজ্ঞ। শ্রেষ্ঠ শ্রেণী শিক্ষক হিসাবে দুইজন শিক্ষক প্রেসিডেন্ট স্বর্ণপদক পাওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন।

v        অত্র বিদ্যালয়ের অসংখ্য মেধাবী শিক্ষার্থী চিকিৎসক, প্রকৌশলী, বিচারপতি, আইনজীবি, বুদ্ধিজীবি, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, সেনা বাহিনীর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা, নাসার বিজ্ঞানী, এমনকি জাতীয় সংসদের সাংসদ হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে।

(খ) সহ পাঠক্রমিক কার্যাবলী:-

v        ক্রীড়া ক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহন করে স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদক প্রাপ্তির গৌরব অর্জন করেছে।

v        স্কাউটিং ও গাইডিং-এ উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অক্ষুন্ন রেখে চলেছে। জাতীয় পযা©র্য়ও প্রেসিডেন্ট এওয়ার্ড লাভের গৌরব অর্জন করেছে।

v        ১৯৮৩ সন থেকে বি এন সি সি এর একটি নিয়মিত চৌকস বাহিনী প্রতি বছর সেনাবাহিনীর সাথে প্রশিক্ষণ গ্রহন করে কৃতিত্ব অর্জন করে ও বিভিন্ন পদক লাভ করে আসছে। বিদ্যালয়ের বি এন সি সি কার্যক্রম সফল ভাবে পরিচালনায় ও কৃতিত্বের জন্য বি এন সি সি শিক্ষক সেনাবাহিনীর কমিশন লাভ করেন এবং লেফ্টন্যান্ট পদে উন্নীত হন।

১৯৬১ সনের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি                           সুযোগ্য প্রতিষ্ঠান প্রধান ও শিক্ষক-শিক্ষিকা মন্ডলী দ্বারা মান সম্মত শিক্ষা দান করে আসছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকা মন্ডলী উদ্দীপ্ত। পরিবর্তিত পাঠক্রম  ও পাঠ্যসূচীর আলোকে পাঠদান প্রক্রিয়া অব্যাহত আছে। এ প্রতিষ্ঠানটিকে আগামী দিনে শিক্ষা, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া ক্ষেত্রে দেশের একটি অন্যতম সেরা প্রতিষ্ঠান হিসাবে গড়ে তোলাই

স্কুলটি ন্যাচারেল গ্যাস ফার্টিলাইজার ফ্যাক্টরী লি: এর আবাসিক কলোনীর কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত। সিলেট শহর থেকে ২৮ কিলোমিটার দক্ষিন-পূর্ব দিকে এর অবস্থান। ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা শহর থেকে স্কুলের দূরত্ব ৫ কিলোমিটার। জেলা ও উপজেলা শহরের সাথে পাকা সড়ক পথে সুন্দর যোগাযোগ আছে।

মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ:-

(ক) শিক্ষাবোর্ডে সম্মিলিত স্থান-

ক্রমিক নং

নাম

বছর

গ্রুপ

শিক্ষা বোর্ডে মেধা তালিকায় স্থান

০১

খন্দকার মো: মোস্তফা জগলুল

১৯৬৯

বিজ্ঞান

২০তম

০২

সাবির আহমদ মজুমদার

(বর্তমানে নাসার বিজ্ঞানী)

১৯৭৩

বিজ্ঞান

৮ম

০৩

এ.কে মিজবাহ উদ্দিন

১৯৭৭

বিজ্ঞান

১৮তম

০৪

ফিরোজ আলম

১৯৭৭

কৃষি বিজ্ঞান

২য়

০৫

মহিদুর রহমান

১৯৭৭

বিজ্ঞান

১৬তম

০৬

নাছির উদ্দিন শিকদার

১৯৭৮

বিজ্ঞান

১৮তম

০৭

ইখতিয়ার হোসেন

১৯৭৮

বানিজ্য

৯ম

০৮

আইমানুর বেগম

১৮৮৪

বিজ্ঞান

১৪তম

০৯

দিদার হোসেন ভূইয়া

১৯৮৫

বিজ্ঞান

১৬তম

১০

তৌফিকুল ইসলাম

১৯৯৮

বিজ্ঞান

৩য়

 

(খ) এস এস সিতে জিপিএ ৫.০০ প্রাপ্তি-

বছর

সংখ্যা

২০১২

২৬

২০১১

২৫

২০১০

২২

২০০৯

২৯

২০০৮

০৭

২০০৭

২১

২০০৬

০৬

২০০৫

১০

২০০৪

০৯

২০০৩

০২